জেনে নিন টমেটো দিয়ে ফর্সা কিভাবে হবেন?

0
21
জেনে নিন টমেটো দিয়ে ফর্সা কিভাবে হবেন?

ফর্সা ত্বকের আকাঙ্ক্ষা অনেকেরই মনে লুকিয়ে থাকে। বাজারে নানা রকমের ক্রিম ও লোশন থাকলেও, প্রাকৃতিক উপায়ের প্রতি আস্থা অনেকেরই বেশি। টমেটো, সহজলভ্য এই শাকসবজি, ত্বক ফর্সা করার জন্য একটি কার্যকরী উপাদান হিসেবে পরিচিত।

টমেটো ত্বকের জন্য কেন উপকারী?

  • লাইকোপিন: টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে লাইকোপিন থাকে, যা ত্বকের ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রক্ষা করে এবং ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে।
  • ভিটামিন সি: টমেটোতে ভিটামিন সি প্রচুর পরিমাণে থাকে, যা ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন বৃদ্ধি করে, ত্বককে টানটান ও স্থিতিস্থাপক রাখে।
  • অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট: টমেটোতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রচুর পরিমাণে থাকে, যা ত্বকের কোষের ক্ষতি রোধ করে এবং বয়সের ছাপ দেরিতে আসতে সাহায্য করে।
টমেটো ত্বকের জন্য কেন উপকারী

টমেটোর ৮ টি ফেসপ্যাক

১. টমেটো ও মধু:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, মধু – ১ চা চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও মধু ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করে ত্বককে উজ্জ্বল করে।

২. টমেটো ও কলা:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, পাকা কলার গুঁড়া – ১ টেবিল চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও পাকা কলার গুঁড়া ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বকের বয়সের ছাপ দেরিতে আসতে সাহায্য করে।

৩. টমেটো ও ওটমিল:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, ওটমিল – ১ টেবিল চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও ওটমিল ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বকের মৃত কোষ দূর করে ত্বককে মসৃণ করে।
টমেটো ও বেসনের ফেসপ্যাক

৪. টমেটো ও বেসন:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, বেসন – ১ টেবিল চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও বেসন ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বকের মৃত কোষ দূর করে ত্বককে উজ্জ্বল করে।

৫. টমেটো ও মুলতানি মাটি:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, মুলতানি মাটি – ১ টেবিল চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও মুলতানি মাটি ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বকের তেল শোষণ করে ত্বককে তেলমুক্ত রাখতে সাহায্য করে।
টমেটো ও মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক

৬. টমেটো ও হলুদ:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া – ১ চা চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও হলুদ গুঁড়া ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বকের ব্রণ ও

৭. টমেটো ও শসা:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, শসার রস – ১ টেবিল চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও শসার রস ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বককে ঠান্ডা রাখে এবং ত্বকের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে।
টমেটো ও শসার ফেসপ্যাক

৮. টমেটো ও অ্যাভোকাডো:

  • উপকরণ: টমেটোর রস – ১ টেবিল চামচ, অ্যাভোকাডোর গুঁড়া – ১ টেবিল চামচ
  • প্রণালী: টমেটোর রস ও অ্যাভোকাডোর গুঁড়া ভালো করে মিশিয়ে মুখে ও ঘাড়ে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।
  • উপকারিতা: ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে ত্বককে নরম ও মসৃণ করে।

টমেটো ফেসপ্যাকের অসাধারণ কিছু উপকারিতা:

১. ত্বক ফর্সা করে: টমেটোতে থাকা লাইকোপিন ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে ফর্সা করতে সাহায্য করে।

২. ব্রণ ও ব্ল্যাকহেড দূর করে: টমেটোতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ব্রণ ও ব্ল্যাকহেড দূর করতে সাহায্য করে।

৩. ত্বকের তৈলাক্ততা নিয়ন্ত্রণ করে: টমেটো ত্বকের তৈলাক্ততা নিয়ন্ত্রণ করে ত্বককে তেলমুক্ত রাখতে সাহায্য করে।

৪. ত্বকের বয়সের ছাপ দেরিতে আসতে সাহায্য করে: টমেটোতে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের কোলাজেন উৎপাদন বৃদ্ধি করে ত্বককে টানটান ও স্থিতিস্থাপক রাখে।

৫. ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করে: টমেটো ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করে ত্বককে উজ্জ্বল করে।

টমেটো ফেসপ্যাকের অসাধারণ কিছু উপকারিতা

৬. ত্বকের রোদে পোড়া ভাব কমাতে সাহায্য করে: টমেটোতে থাকা লাইকোপিন ত্বকের রোদে পোড়া ভাব কমাতে সাহায্য করে।

৭. ত্বকের ছিদ্র ছোট করতে সাহায্য করে: টমেটো ত্বকের ছিদ্র ছোট করে ত্বককে মসৃণ করে।

৮. ত্বকের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে: টমেটোতে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান ত্বকের প্রদাহ কমাতে সাহায্য করে।

৯. ত্বকের রক্ত ​​​​সঞ্চালন বৃদ্ধি করে: টমেটো ত্বকের রক্ত ​​​​সঞ্চালন বৃদ্ধি করে ত্বককে উজ্জ্বল করে।

১০. ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে: টমেটো ত্বককে ময়েশ্চারাইজ করে ত্বককে নরম ও মসৃণ করে।

টমেটো মুখে মাখার কিছু অপকারিতা:

১. ত্বকের প্রদাহ বাড়াতে পারে: টমেটোতে থাকা লাইকোপিন ত্বকে প্রদাহ বাড়িয়ে ত্বকের লালভাব, জ্বালা, চুলকানি, ফুসকুড়ি ইত্যাদি সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

২. ত্বকের এলার্জি হতে পারে: টমেটোতে থাকা অ্যালার্জেন ত্বকে এলার্জির প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।

৩. ত্বকের ছিদ্র বড় করতে পারে: টমেটো ত্বকের তেল বের করে ত্বকের ছিদ্র বড় করে ত্বককে তেলমুক্ত রাখতে সাহায্য করে। তবে, অতিরিক্ত ব্যবহারে ত্বকের ছিদ্র বড় হতে পারে।

টমেটো মুখে মাখার কিছু অপকারিতা

৪. ত্বককে শুষ্ক করে ফেলতে পারে: টমেটো ত্বকের তেল বের করে ত্বককে শুষ্ক করে ফেলতে পারে।

৫. ত্বকের রঙ ফ্যাকাশে করতে পারে: টমেটোতে থাকা অ্যাসিড ত্বকের রঙ ফ্যাকাশে করতে পারে।

৬. চোখের জ্বালা সৃষ্টি করতে পারে: টমেটোর রস চোখে পড়লে জ্বালা, লালভাব, পানি পড়া ইত্যাদি সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

টমেটো খাওয়ার অসাধারণ কিছু উপকারিতা:

১. ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে: টমেটোতে থাকা লাইকোপিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে।

২. হৃৎপিণ্ডের সুরক্ষা করে: টমেটোতে থাকা পটাশিয়াম হৃৎপিণ্ডের সুরক্ষা করে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

৩. ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে: টমেটোতে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে ব্রণ ও ব্ল্যাকহেড দূর করতে সাহায্য করে।

টমেটো খাওয়ার অসাধারণ কিছু উপকারিতা

৪. চোখের জন্য উপকারী: টমেটোতে থাকা ভিটামিন এ চোখের জন্য উপকারী।

৫. হজমশক্তি বৃদ্ধি করে: টমেটোতে থাকা ফাইবার হজমশক্তি বৃদ্ধি করে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে।

৬. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে: টমেটোতে থাকা ভিটামিন সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

৭. ওজন কমাতে সাহায্য করে: টমেটোতে থাকা ক্যালোরি কম এবং ফাইবার বেশি থাকায় ওজন কমাতে সাহায্য করে।

কিছু কমন প্রশ্ন ও উত্তর:

প্রশ্ন ১: কতবার টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহার করা উচিত?

উত্তর: সপ্তাহে ২-৩ বার টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহার করা যেতে পারে।

প্রশ্ন ২: কোন ত্বকের জন্য টমেটো ফেসপ্যাক উপকারী?

উত্তর: টমেটো ফেসপ্যাক সব ধরণের ত্বকের জন্য উপকারী। তবে, স্পর্শকাতর ত্বকের জন্য টমেটো ব্যবহারের পূর্বে অ্যালার্জি পরীক্ষা করে নেওয়া উচিত।

প্রশ্ন ৩: টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহারের পর ত্বকে কোন প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে?

উত্তর: টমেটো ব্যবহারের পর ত্বকে কিছুক্ষণের জন্য জ্বালা বা লালভাব দেখা দিতে পারে। তবে, এটি স্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই চলে যাবে।

প্রশ্ন ৪: গর্ভবতী অবস্থায় টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহার করা কি নিরাপদ?

উত্তর: গর্ভবতী অবস্থায় টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহার করা নিরাপদ। তবে, ব্যবহারের পূর্বে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

প্রশ্ন ৫: টমেটো ফেসপ্যাক তৈরির জন্য কি কি উপাদান ব্যবহার করা যেতে পারে?

উত্তর: টমেটো ফেসপ্যাক তৈরির জন্য মধু, दही, ওটমিল, লেবু, মুলতানি মাটি, হলুদ, শসা, অ্যাভোকাডো, কলা, বেসন ইত্যাদি উপাদান ব্যবহার করা যেতে পারে।

প্রশ্ন ৬: টমেটো ফেসপ্যাক কতক্ষণ মুখে রাখা উচিত?

উত্তর: টমেটো ফেসপ্যাক ১০-২০ মিনিট মুখে রাখার পর ধুয়ে ফেলুন।

প্রশ্ন ৭: টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহারের কি কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে?

উত্তর: টমেটো ফেসপ্যাক ব্যবহারের তেমন কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। তবে, স্পর্শকাতর ত্বকের জন্য টমেটো ব্যবহারের পূর্বে অ্যালার্জি পরীক্ষা করে নেওয়া উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here